লিচু চাষ

লিচু চাষ

পরিচিতি

ইংরেজী নামঃ Litchi/Lychee

বৈজ্ঞানিক নামঃ Litchi chinensis

পরিবারঃ Sapindaceae

লিচু গন্ধ ও স্বাদের জন্য দেশ-বিদেশ বেশ জনপ্রিয়। বাংলাদেশে বৃহত্তররাজশাহী, দিনাজপুর, কুষ্টিয়া, যশোর, ময়মনসিংহ ও চট্টগ্রাম জেলায় বেশিপরিমানে লিচু উৎপন্ন হয়। বাংলাদেশে বর্তমানে প্রায় ৫ হাজার হেক্টরজমিতে লিচুর চাষ হয় এবং মোট উৎপাদন প্রায় ১৩ হাজার টন কিন্তু তাআমাদের চাহিদার মাত্র ১/৪ অংশ পূরন করে। লিচুতে ভিটামিন-বি, সি,খনিজ লবন ও ক্যাসিয়াম প্রচুর পরিমানে পাওয়া যায়।

 

জাত

বোম্বাই হলো দেশের পুরানো উচ্চ ফলনশীল লিচুর জাত। এছাড়া অন্যান্যজাতের মধ্যে রাজশাহী, মাদ্রাজী, মঙ্গলবাড়ীয়া , কদমী, কালীপুরী,মুজাফফরপুরী, বেদানা এবং চায়না-৩ উল্লেখযোগ্য। সমপ্রতি বাংলাদেশকৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট বারি লিচু-১, ২ ও ৩ নামে তিনটি লিচুর জাতঅবমুক্ত করেছে।

 

 

বৈশিষ্ট্য বারি লিচু-১ বারি লিচু-২ বারি লিচু-৩
ফুল আসার সময় মাঘের প্রথম প্তাহ মাঘের মাঝামাঝি মাঘের মাঝামাঝি
ফল সংগ্রহের সময় জৈষ্ঠের প্রথম সপ্তাহ আষাঢ়ের সপ্তাহ জৈষ্ঠের মাঝামাঝি
ফলের আকৃতি ডিম্বাকার গোলাকার লম্বাটেহৃদপিন্ডাকার
ফলের গড় ওজন ২০ গ্রাম ১৬ গ্রাম ১৮ গ্রাম
পাকা ফলের রং লালচে গোলাপী হলদে সবুজছোপসহ লাল
শাঁস শাঁস রসালো ও মিষ্টি শাঁস রসালো ও মিষ্টি শাঁস রসালো ও মিষ্টি
ফলন (গাছ প্রতি)  ৫০০০ টি ৩০০০ টি ২০০০ টি
ফলের মৌসুম আগাম জাত নাবী জাত মাঝ মৌসুমী
ভক্ষণ যোগ্য অংশ ৬৫% ৬৮% ৬৭%
জাত

 

দেশের উত্তরাঞ্চরেজন্য উপযোগী জাত। অতি বৃষ্টি এলাকাসিলেট ও পাহাড়ীএলাকা। সমগ্র বাংলাদেশ

চায়না ৩:

সমগ্র বাংলাদেশে চাষ উপযোগী একটি জাত। ফলের আকার চ্যাপ্টাগোলাকৃতি। অনেকটা প্রায় বারি-৩ লিচুর সাদৃশ্য। জুন মাসের শেস সপ্তাহেলিচু পাকে।  পাকা লিচুর রং হলদে সবুজ ছোপসহ লাল। ফলের শাঁস মিষ্টিও রসালো । ফলের বীজ আকারে ছোট। । ফলের গড় ওজন ২৫ গ্রাম।টিএসএস-১৮%। ভক্ষনযোগ্য অংশ ও বীজের অনুপাত ১৫ঃ ১।

 

বোম্বাই:

জাতটি ঈশ্বরদী, পাবনা, রাজশাহী, মেহেরপুর এলাকায় ভালফলন দিয়ে থাকে। ফলের আকার ডিম্বাকৃতি| অনেকটা প্রায় বারি-১ লিচুরসাদৃশ্য। মে মাসের ২য় সপ্তাহে ফল পাকে।  পাকা লিচুর রং লালছে। ফলেরশাঁস মিষ্টি ও রসালো । ফলের বীজ আকারে ছোট থেকে মাঝারী। ফলেরগড় ওজন ১৮-২০ গ্রাম। টিএসএস-১৭-১৮%। ভক্ষনযোগ্য অংশ ও বীজেরঅনুপাত ৫ঃ ১।

মঙ্গলবাড়ীয়াঃ আগাম লিচুর জাত। ময়মনসিংহ কিশোরগঞ্জঅঞ্চলে চাষ উপযোগী একটি জাত। টক মিষ্টি স্বাদযুক্ত জাতেরফলের বীজ আকারে বড়। জাতে পোকার আক্রমন প্রবনতাবেশী।

 

মুজাফফরপুরী: নাটোরে এ জাতটি ভাল ফলন দিয়ে থাকে। মে মাসের ২য়সপ্তাহে ফল পাকে।  পাকা লিচুর রং গোলাপী। ফলের শাঁস মিষ্টি ও রসালো। ফলের বীজ আকারে বড়। ফলের গড় ওজন ২০ গ্রাম।টিএসএস-১৭-১৮%। ভক্ষনযোগ্য অংশ ও বীজের অনুপাত ৪.৭৫১।

 

বেদানা লিচু: দিনাজপুর জেলায় চাষ উপযোগী একটি জাত। দিনাজপুরনির্দিষ্ট এলাকার বাহিরে দিনাজপুরের অন্যান্য এলাকাতেও এ জাতটি ভালদেয় না। সুতরাং এ জাতটি দিনাজপুরের বাহিরে অন্য কোন জেলাতে চাষনা করাই উত্তম। ফল আকারে গোলাকৃতি। পাকা লিচুর রং উজ্জল লাল।জুন মাসের ২য় সপ্তাহে ফল পাকে। ফলের গড় ওজন ২৫-২৮ গ্রাম।টিএসএস-১৮-১৯%। ফলের শাঁস মিষ্টি ও রসালো। ফলের বীজ আকােওছোট ও কুচকানো। ভক্ষনযোগ্য অংশ ও বীজের অনুপাত ২৮ ঃ ১।

 

চায়না -২: এ জাতটি পার্বত্য অঞ্চলে ভাল ফলন দিয়ে থাকে। সুমিষ্ট-রসালোএ জাতের বীজের আকার তুলনামুলক ভাবে বড়।

 

জলবায়ু ও মাটি

লিচু অবউষ্ণ মন্ডলের ফল এবং আর্দ্র আবহাওয়ায় এর বৃদ্ধি ভাল হয়। পানিনিষ্কাশনের সুবিধা থাকলে লিচু গাছ সব ধরণের মাটিতেই জন্মাতে পারে।তবে উর্বর বেলে দোঁআশ মাটি লিচরি জন্য উত্তম।

 

বংশ বিস্তার

লিচুর অযৌন  বংশবৃদ্ধির জন্য গুটি কলম একটি উত্তম পদ্ধতি হিসেবেসর্বত্রই স্বীকৃত| রোগ ও পোকা মাকড় মুক্ত সুস্থ গাছের এক বছর বয়সেরডালে গুটিকলম করা হয়। মেজুন মাস লিচুর গুটি কলম বাঁধার উপযুক্তসময়। শিকড় আসতে প্রায় দুমাস সময় নেয়।

 

জমি তৈরি

উঁচু বা মাঝারি উঁচু জমি নির্বাচন করতে হবে। চাষ ও মই দিয়ে জমিসমতল এবং আগাছামুক্ত করে নিতে হবে। বসত ভিটায় দুএকটি গাছরোপণ করতে চাইলে জমি তৈরী না করে সরাসরি গাছ রোপণের জন্য মাদাকরলেই হবে।

 

রোপণ প্রণালী

সমতল ভূমিতে বর্গাকার পদ্ধতিতে রোপণ করাই শ্রেয়। পাহাড়ী এলাকায়কন্টুর পদ্ধতিতে গাছ রোপণ করা হয়ে থাকে।

 

চারা নির্বাচন

এক বছর বয়ষ্ক সুস্থ ও সবল গুটি কলমের চারা বাছাই করতে হবে। বড়চারা রোপণ না করাই শ্রেয়।

 

চারা রোপণের সময়

মধ্যমে থেকে মধ্যজুলাই এবং মধ্যআগষ্ট থেকে মধ্য-সেপ্টেম্বরের শেষপর্যন্ত চারা রোপণ করা যেতে পারে।

 

চারা রোপণের দূরত্ব

৮ মিটার × ৮ মিটার বা ১০ মিটার × ১০ মিটার. দূরত্বে চারা রোপণ করতেহবে।

 

গর্ত তৈরি

গর্তের আকার:  ১ মিটার × ১ মিটার × ১ মিটার হওয়া প্রয়োজন।

 

সার প্রয়োগ ও চারা রোপণ

চারা রোপণের ১০১৫ দিন পূর্বে গর্ত করতে হবে এবং সার ও মাটি মিশিয়েগর্ত ভর্তি করতে হবে। চারা রোপণের সময় সাবধানে চারাটি গোড়ার মাটিরবল সহ গর্তের মাঝখানে সোজাভাবে লাগাতে হবে। চারা রোপণের পরপানি, খুটি ও বেড়ার ব্যবস্থা করতে হবে। রোপণের ৬ মাস পরে ইউরিয়াসার উপরি প্রয়োগ করতে হবে। প্রতি গাছেই ইটের বা বাঁশের ঘের দেয়াপ্রয়োজন।

 

পূর্ণ বয়ষ্ক গাছে সার প্রয়োগ

একটি পূর্ণ বয়স্ক ফলন্ত গাছের জন্য বাৎসরিক মাত্রা অনুযায়ী সার প্রয়োগকরতে হবে। বর্ষার আগে ও বর্ষার পর সার উপরি প্রয়োগ করতে হবে।নিম্নের ছকে একটি গাছের রোপণ কালীন সারের মাত্রাসহ বিভিন্ন বয়সেরসারের মাত্রা দেয়া হল।

 

 

 

সারেরনাম রোপণেরসময়মাদায়প্রয়োগ রোপণের৬ মাস পরউপরিপ্রয়োগ গাছের বয়স (বছর) ও সারের মাত্রা
১-২ ৩-৪ ৫-৭ ১১-১৫ ১৬-২০ ২০এরউর্দ্ধে
গোবর (কেজি) ১৫-২০ ১০ ১০ ১০ ৩০ ৪০ ৫০
ইউরিয়া(গ্রাম) ৩০০-৩৫০ ৩০০-৩৫০ ৪০০ ৫০০ ১২০০ ১৫০০ ২০০০
টিএসপি(গ্রাম) ৬০০-৭০০ ৫০০ ৭৫০ ২১০০ ২৭০০ ৩৫০০
এমপি(গ্রাম) ৩৫০-৪৫০ ২০০ ৪০০ ১২০০ ১৬০০ ২০০০
জিপসাম(গ্রাম) ২০০-৩০০ ১০০ ১০০ ১৫০ ২০০ ২৫০
জিংকসালফেট(গ্রাম) ৪০-৬০ ১০ ১০ ৩০ ৪০ ৫০

 

অন্তর্বর্তীকালীন পরিচর্যা

পানি সেচ

চারা গাছের বৃদ্ধির জন্য মাঝে মাঝে সেচ দিতে হবে। যদি পর্যাপ্ত বৃষ্টিপাতনা হয় তবে ফলন্ত গাছের বেলায় পূর্ণ ফুল ফোটা সময়ে একবার এবং ফলমটর দানার আকৃতি ধারণ পর্যায়ে আর একবার সেচ দিলে ভাল ফলন হয় ।বেসিন পদ্ধতি সেচ দিতে হবে। তবে গাছে মুকুল আসার তিন মাস আগথেকে সেচ দেয়া বন্ধ রাখতে হবে।

রোগ বালাই পোকামাকড় দমন

লিচুর মাইট ও লিচু ফল ছিদ্রকারী পোকা লিচুর ক্ষতি করে থাকে।

লিচুর মাইট

আক্রান্ত লিচু গাছের পাতাগুলো মাইটের আক্রমণে লাল ভেলভেট এর মতদেখায় এবং পাতাগুলো কুঁকড়িয়ে আলাদা আকৃতি ও বর্ণের হয়। লিচুরমাইট দমনে রাখতে হলে ফল সংগ্রহের পর আক্রান্ত সকল পত্রগুচ্ছ কেটেনিয়ে পুড়িয়ে ফেলতে হবে। সাধারণত দুই থেকে তিন বছর জৈষ্ঠ্য-অষাঢ়এবং শ্রাবণ-ভাদ্র মাসে আক্রান্ত ডালপালা বা ডগা ছাঁটাই এবং ধ্বংশ করতেহবে। এ ছাড়া নিওরন/ ওমাইট  ২ মিলি প্রতি লিটার পানির সাথে মিশিয়েগাছের নতুন পাতায় ১৫ দিন পর পর ভালভাবে সেপ্র করে মাইট দমনেরাখা যায়

 

 

লিচু ফল ছিদ্রকারী পোকা

ফল পাকার সময় এ পোকা ফলের বোটার কাছে ছিদ্র করে ফলের ভিতরঢুকে এবং বীজকে আক্রমণ করে। পরে ছিদ্রের মুখে বাদামী রংয়েরকরাতের গুড়ার মত এক প্রকার মিহি গুড়া উৎপন্ন হয়।  এতে ফল নষ্ট হয়এবং বাজার মূল্য কমে যায়। লিচু ফলের বোটার দিকে ফলের খোসারনিচেই এ পোকার কীড়া দেখা যায়। ফল পাকার ১.৫ মাস পূর্বে ফল ব্যাগিংকরে বা প্রতি লিটার পানিতে ১ মি.লি সাইপারমেথ্রিন (রিপকর্ড/ সিমবুস/ফেনম) ১০ ইসি বা ডেসিস ২.৫ ইসি মিশিয়ে ফলের গুটি ধরার পর একবারএবং তার ১৫ দিন পর একবার প্রয়োগ  করে পোকা দমন করা যায়।

 

বাঁদুর তাড়ানো

ফল পাকার সময় বাঁদুর পাকা ফলের ব্যাপক ক্ষতি করে থাকে। এ জন্যজাল দিয়ে পাকা ফল সমেত গাছ ঢেকে দেয়া হয়। সারা রাত্রি ঢোল বা টিনপিটিয়ে বাঁদুর তাড়ানো হয়। কোথাও কোথাও দুই সারি গাছের মাঝে বড়বড় খোপযুক্ত নাইলনের জাল টানিয়ে দিয়ে বাঁদুর তাড়ানো হয়।

 

ফল আহরণ ও ফলন

ফল ধারণ থেকে শুরু করে ৫৫৬০ দিন পরেই ফল আহরণের উপযুক্তহয়। ফলে রং ধরলে বুঝতে হবে আহরণের সময় হয়েছে । পাতাসহ গোছায়গোছায় লিচু ফল আহরণ করতে হয়। এতে লিচু বেশিদিন সংরক্ষণ করাযায়। পূর্ণ বয়স্ক লিচুগাছ থেকে বছরে ২০০০৪০০০ ফল আহরণ করাযেতে পারে।

 

তথ্য সূত্র

১। Lychee production  in the Asia – Pacific Region, FAO Regional Office, Thailand.

 

২।  বাংলাদেশের প্রয়োজনীয় গাছ-গাছড়া. ড. তপন কুমার দে,জানুয়ারী’২০০৬।

৩। ফলের আধুনিক উৎপাদন প্রযুক্তি,  উদ্যানতত্ত্ব  গবেষণা কেন্দ্র, বারি,জয়দেবপুর, গাজীপুর, ২০০৫।

৪।  উদ্ভাবিত কৃষি প্রযুক্তি, বারি, ২০০৫-০৬।

৫।  সেচের মাধ্যমে ফসল উৎপাদন ম্যানুয়াল, ডিএই, ঢাকা।

৬। লিফলেট, এনসিডিপি, ডিএই, খামারবাড়ি, ঢাকা।

৭। মোঃ এনামুল হক, ফল ু সব্জীর চাষ ও পুষ্টি পরিচিতি, ডিএই, ,খামারবাড়ি, ঢাকা।

About reusepro

最新の買取価格をたったの5秒で検索!! ● 商品名や型番、ブランド名などから検索して、買取対象上限金額を表示できます。 ● 検索結果からの買取申し込みも可能です。 ● リサイクルプロショップトップページの「買い取り価格検索」欄に、手持ちの商品の商品名や型番などのキーワードを入力します。 該当する商品が表示されます。検索結果内にお手持ちの商品がある場合は、[電話で 買取価格を 調べる][今すぐweb査定をする] ボタンから、買取を申し込めます。 ※他社が簡単に真似できない毎日買取上限金額を公開しているリサイクルショップです。 買取価格に自信があるからこそ、買取リストを公開他社ではまねできない自信があるから買取りリストを24時間公開しています。 買取価格は日々変動しますが早く、高く売りたいというお客さまの声にお応えできる様にスピードと買取価格を重視しています。
This entry was posted in জেলা ভিত্তিক কৃষি বাজার. Bookmark the permalink.

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

Connecting to %s